আপনি কি একটি নতুন ব্যবসা শুরু করেছেন। অনেকের মতো আপনিও ব্যবসা টিতে উন্নতি করতে চান। বিক্রয় বাড়াতে চান। এখানে আমরা আলোচনা করবো কি করে আপনার বিজনেস কে অনলাইন এ নিয়ে আসবেন। আপনি যদি ব্যবসা টিকে অনলাইন নিয়ে আসেন তাহলে আপনার ব্যাবসায় অনেক গুলি সুবিধা হবে।

প্রথমত আপনার ব্যাবসার পরিচিতি অনেক তাই বাড়বে। লোকে আপনার ব্যবসা সমন্ধে আরো বেশি করে জানতে পারবে। আপনি কি ব্যবসা করেন , কি প্রোডাক্ট বা সার্ভিস বিক্রি করেন তা জানতে পারবে।

দ্বিতীয়ত অনলাইন মাধ্যমে ব্যবস্যা কে প্রোমোটে করা অনেক বেশি সস্তা। এমন অনেক গুলো অনলাইন প্লাটফর্ম আছে যেখানে সম্পূর্ণ বিনা পয়সায় নিজের ব্যবসা কে প্রোমোটে করতে পারবেন।

তৃতীয়ত অনলাইন এ ব্যবসা র প্রচার আপনি নিজের বাড়ি বসেই শুধুমাত্র একটি স্মার্টফোনে এবং ইন্টারনেন্ট কানেকশন র ওপর নির্ভর করে করতে পারবেন। আপনাকে কোথাও যেতে হবে না। আপনি আপনার সময় মতো সুবিধা মতো নিজের ব্যাবসার প্রচার গুলো বাড়ি বসেই করতে পারবেন।

চতুর্থত যদি অনলাইন এ ঠিক থাকে মতো প্রচার করতে পারেন তালে শুধু মাত্র আপনার ব্যবসা সমব্ধ্যে আগ্রহীরা শুধুমাত্র আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করবে। কিন্তু যদি এটা আপনি কাগজে বিজ্ঞাপন দেয়া বা টিভিতে বিজ্ঞাপন দেন তালে খরচ যেমন বেশি পড়বে তেমনি অনেকের কাছে পৌছালো কোনো কাজ হবে না। কারণ এর মধ্যে ৯০% মানুষ এই বিজ্ঞাপন গুলোকে এড়িয়ে যাবে। আপনি নিজেই ভাবুন না যে আপনি কাগজের বিজ্ঞাপন কতটা আগ্রহি।

এই তো গেলো অনলাইন ব্যবসা নিয়ে আসার সুবিধা। এবার আসুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে আপনি সম্পূর্ণ নিখরচায় অনলাইন এ প্রচার করবেন।

. গুগল মাই বিজনেস (Google My Business) বা GMB :

google my business

গুগল নিজের বিজনেস কে নথিভুক্ত করার একটি উপায়। এটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করা যায়। এর জন্য লাগে শুধুমাত্র একটি gmail id. এন্ড্রোইড প্লেস্টোরে থেকে গুগল my business apps তা ডাউনলোড করে নিন। আপনার ফোনে সেটি ইনস্টল করুন।

এর পর নিজের ব্যাবসার নাম , ফোন নম্বর , ঠিকানা , লোগো , ছবি দিয়ে ফিল্ডগুলো ভর্তি করুন। নির্দিষ্ট ম্যাপ পেইন্টিং এ গিয়ে নিজের ব্যাবসার লোকেশন দিয়ে সেট করুন। এই ম্যাপ পেইন্টিং তা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। খেয়াল রাখবেন এটা যাতে যথাযত হয়। এটা দেখেই কোনো ক্রেতা আপনার দোকানে বা ব্যাবসায় সহজে এসে যোগাযোগ করতে পারবেন।

এর পর ১ দিন মতো অপেক্ষা করুন। ব্যবসাটি ভেরিফাই হয়ে গেলে সপ্তায় অন্তত একবার এখানে ব্যবসা সংক্রান্ত ছবি, অফার বা আপডেট করুন। এটি আপনার বাবস্যাকে লোকালই পরিচিতি দিতে ভীষণ ভাবে সাহায্য করবে।

আপনার বর্তমান ক্রেতাদের অনুরোধ করুন আপনার GMB প্রোফাইল এসে রিভিউ দিতে। তাহলে আপনার ব্যাবসার অনলাইন প্রোফাইল তা আরো শক্তিশালী হবে। এই ম্যাপ পেইন্টিং তা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। খেয়াল রাখবেন এটা যাতে যথাযত হয়। এটা দেখেই কোনো ক্রেতা আপনার দোকানে বা ব্যাবসায় সহজে এসে যোগাযোগ করতে পারবেন।

২. কি করে আপনার বিজনেস কে অনলাইন এ নিয়ে আসবেনফেসবুক পেজ তৈরী করে :

এটি একটি নিখরচায় আপনার ব্যবসাকে প্রমোট করার সহজ উপায়। আপনার ফেসবুক প্রোফাইল গিয়ে ফেইসবুক পেজ তৈরী করুন। Google My Business এর মতো নির্দিষ্ট তর্থ্য দিয়ে ভর্তি করুন। ব্যাবসার লোগোটা আপলোড করুন। একটি ফেসবুক কভার বানান যেখানে আপনার ব্যাবসার তর্থ্য গুলো যথাযথ ভাবে থাকবে। সপ্তাহেই একবার অন্তত ব্যাবসার আপডেট দিন এই পেজ।

৩. ফেসবুক গ্রুপ এ শেয়ার করুন :

বিভিন্ন লোকাল গ্রুপ বা আপনার ব্যাবসার বিষয় ভিত্তিক গ্রুপ এ আপনার পেজ ওর আপনার পেজের পোস্ট গুলো কে শেয়ার করুন। এটি অবশই অনন্তত ২ থেকে ৩ বার করবেন। মঙ্গলবার এবং বৃহস্পতি বার অবশই সকাল ৮ টা থেকে ১২ টা শেয়ার করবেন। তাহলে বেশি প্রচার পাবেন। এটি ফেসবুক এর তথ্য থেকেই জানা গেছে।

৪. ইউটুবে চ্যানেল তৈরী করুন :

পারলে একটি ইউটুবে চ্যানেল তৈরী করুন। ধরুন আপনার কোনো খাবার দোকান থাকলে আপনি খাবার তৈরির ভিডিও এর সাথে সাথে আপনার অনন্যা পদ বা মেনু গুলো ভিডিও তে বলুন। এবার সেই ভিডিও গুলো আপনি ফেইসবুক শেয়ার করুন। এক্ষেত্রে যদি বাংলায় ভিডিও বানান তবে শুত্রুবার বা রবিবার সকালে সেগুলো ইউটুবে পাবলিশ করুন। ভালো ‘রিচ’ পাবেন।

৫. গুগল সাইট টিকে লাইভ করুন:

যখনি আপনি google my business একটি ঠিকঠাক প্রোফাইল তৈরী করবেন তখন Google থেকে একটি ফ্রি তে ওয়েবসাইট পাবেন। উদাহরণ হিসেবে এটি দেখতে পারেন (https://bharati-technologies.business.site/) . এক ভাবে google my business এর মেনুতে গিয়ে নিচের দিকে গিয়ে ওয়েবসাইট অপসন গিয়ে এটি কে লাইভ করুন। এটি অবশৈই আপনার ব্যাবসার প্রচারে অনেকটাই সাহার্জ করবে।

তবে এটি যেতেহু ফ্রি ওয়েবসাইট তাই এর অনেক সীমাৱদ্ধতা আছে। সেটা আপনারা ব্যবহার করতে করতে বুজবেন। যদি ব্যাবসার জন্য ভালো , উন্নত ওয়েবসাইট চান তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

৬. B২B সাইট এ নিজের ব্যবসাকে রেজিস্ট্রি করুন :

বিজনেস টু বিজনেস সাইট গুলো তে নিজের ব্যবসাকে নথিভুক্ত করুন। এতে অনলাইন এ আপনার প্রচার আরো বাড়বে। এরকম কটা সাইট হলো : Indiamart, Alibaba, TradeIndia, Justdial, Locanto, Yellowpages. এগুলিতে তে ফ্রি একাউন্ট বানিয়ে নিজের ব্যবসা কে নথিভুক্ত করুন। এর মধ্যে কিছু ক্লাসিফাইড সাইট ও আছে।

একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন যেখানেই একাউন্ট বানান একই ফোন নম্বর , এড্রেস , নাম , লোগো ব্যাবহার করবেন। যদি কোনো ওয়েবসাইট চাই বা দেবার জায়গা থাকে নিজের google ওয়েবসাইট এর লিংক টি দিতে পারেন।

ওপরে বর্ণিত বিষয় গুলি সব ফ্রি তে আপনার ব্যবসা কে অনলাইন মাধ্যমে একটি পরিচিতি দেবে। আপনাকে নতুন কাস্টমার দের কাছে পৌঁছতে সাহায্য করবে। যদি এটি পড়ে আপনার ব্যাবসার কোনো উপকার হয় তাহলে এটি লেখা সার্থক।